1. admin@bartasamahar.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন

পুত্রসন্তানের ‘গ্যারান্টিতে’ নারীর কপালে মারা হলো ২ ইঞ্চি পেরেক

  • আপডেট সময় : বুধবার, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২২
  • ৯৭ বার পঠিত

বার্তা সমাহার আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পুত্রসন্তান পাওয়ার আশায় ভণ্ড পিরের পরামর্শে কপালে পেরেক ঢোকানো হলো এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর। সৌভাগ্যক্রমে দুই ইঞ্চির পেরেক থেকে তার মস্তিষ্ক বেঁচে গেলেও তীব্র ব্যথা নিয়ে শেষপর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছে সেই নারীকে। অভিযুক্ত ভণ্ডকে খুঁজছে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। সম্প্রতি চাঞ্চল্যকর এ ঘটনা ঘটে পাকিস্তানের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর পেশোয়ারে। খবর এএফপির।

আজ বুধবার (৯ ফেব্রুয়ারি) হায়দার খান নামে এক চিকিৎসক জানান, কপালে পেরেক নিয়ে সম্প্রতি এক অন্তঃসত্ত্বা নারী তাদের হাসপাতালে এসেছিলেন। ওই নারী বলেছেন, এক ভণ্ড পির তাকে পুত্রসন্তান জন্ম দেওয়ার গ্যারান্টি দেওয়ায় কপালে পেরেক ঢোকাতে দিয়েছিলেন তিনি।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ গুলোতে আজও অনেক পরিবারে কন্যা সন্তানকে বোঝা হিসেবে দেখা হয়। পুত্রসন্তানের আশায় ভণ্ড পির, কবিরাজ, তান্ত্রিকের শরণাপন্ন হওয়া তাদের কাছে নতুন কিছু নয়। এ ধরনের লোকদের বিশ্বাস, মেয়েদের চেয়ে ছেলেরা বেশি আর্থিক নিরাপত্তা দেয়।

হায়দার খান জানান, ওই নারী প্লায়ার দিয়ে নিজেই কপাল থেকে পেরেক তোলার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু না পেরে হাসপাতালে হাজির হন।

ভুক্তভোগীর কপাল থেকে পেরেক তোলা এ চিকিৎসক বলেন, তিনি (নারী) পুরোপুরি সজাগ থাকলেও প্রচণ্ড যন্ত্রণার মধ্যে ছিলেন। ওই নারী এর আগে তিনটি মেয়ের জন্ম দিয়েছেন এবং এবারও তার গর্ভে কন্যাসন্তান রয়েছে।এক্স-রে’তে দেখা গেছে, পাঁচ সেন্টিমিটার (দুই ইঞ্চি) লম্বা পেরেকটি তার কপাল ছিদ্র করে ভেতরে ঢুকলেও মস্তিষ্কে আঘাত করেনি। হায়দার খান জানিয়েছেন, পেরেকটি ঢোকাতে হাতুড়ি বা এ ধরনের ভারী কোনো বস্তু ব্যবহার করা হয়েছিল।

পেশোয়ার পুলিশ ওই ভণ্ড পিরকে ধরতে ভুক্তভোগী নারীর খোঁজ চালাচ্ছে। শহরটির পুলিশ প্রধান আব্বাস আহসান বলেছেন, আমরা হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছি। আশা করছি, শিগগির সেই নারীর কাছে পৌঁছে যাবো। আমরা দ্রুতই ভণ্ড পিরকে বাগে আনবো।

সূত্র: এনডিটিভি/কেএএ/জিকেএস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর
© All rights reserved © 2022 Barta Samahar
Theme Customized By Theme Park BD